বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ম্যাচ

0
228

শুধু বিশ্বকাপ ক্রিকেট না ২০১৯ বিশ্বকাপ ফাইনালকে ইতিহাসের অন্যতম সেরা ম্যাচ বললে ভুল হবে কি?


ইংলিশদের ঐতিহাসিক বিশ্বকাপ জয়ের এক বছর পূর্ন হলো আজ। চতুর্থ ফাইনালে এসে প্রথমবার বিশ্বকাপ ট্রফিটা হাতে নিতে পেরেছে ক্রিকেটের জনক ইংল্যান্ড। মরগান-স্টোকসরা যেমন সুখস্মৃতিতে বুদ হয়ে থাকবেন আজীবন। তেমনই কেন উইলিয়ামসন আর রস টেইলদের জন্য সেটাই হৃদয়ের রক্তক্ষরণের কারণ।

লর্ডসের কমেন্ট্রি বক্সে গলা ফাটাচ্ছেন ভাষ্যকার ইয়ান স্মিথ। হোম অফ ক্রিকেটের বাইশ গজে তখন মঞ্চায়িত হচ্ছে ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা ওয়ার্ল্ডকাপ ফাইনাল।

ভাষ্যকার ইয়ান স্মিথ বলেন, ‘আমি নিউজিল্যান্ডের মানুষ। কিন্তু সেখানে আমি কোনো দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে যাইনি। কিন্তু, শেষ দিকে ভারসাম্য ধরে রাখা সত্যিই খুব চ্যালেঞ্জিং ছিল।’

ম্যাচ অনেকটা নিজেদের করে নিয়েছিল কেন উইলিয়ামসনের নিউজিল্যান্ড। বিশ্বকাপ ট্রফি আর কিউইদের মাঝখানে যেন ঠায় দাড়িয়ে গেলেন বেন স্টোকস। নিউজিল্যান্ড বংশোদ্ভূত ইংলিশ এই অলরাউন্ডার লড়লেন শেষ পর্যন্ত। একবছর পর স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তাই স্টোকসকে আলাদাভাবেই স্বরণ করলেন ক্যাপ্টেন এউইন মর্গান।

বিশ্বকাপজয়ী ইংলিশ অধিনায়ক এউইন মর্গান স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘স্টোকসের ক্ষেত্রে অনেক কিছুই ঘটেছে যেটা অন্য কারো ক্ষেত্রে হলে ক্যারিয়ারটাই শেষ হতে পারতো। কিন্তু ও কামব্যাক করেছে দারুণভাবে। আর সেকারণেই স্টোকস আমাদের ক্রিকেট ইতিহাসেরই সেরাদের একজন।’

বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচটায় কেউ কাউকে দেবে না ছাড়, সেটাই তো স্বাভাবিক। তাই বিশ্বকাপ ইতিহাসে কোনো ফাইনাল প্রথমবারের মতো গড়ালো সুপার ওভারে। অতিরিক্ত সেই দুই ওভার পরেও ম্যাচ থাকলো টাই। বাউন্ডারির সংখ্যায় এগিয়ে থেকে ম্যাচ জিতে নিলো স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

এমন একটা ফাইনালের জন্য অপেক্ষা করা যায় যুগ যুগ, এমন একটা ম্যাচই স্বার্থক করে তোলে ক্রিকেটকে। ২০১৯ সালে এসে তাই ক্রিকেটের জন্মভূমি ইংল্যান্ডের প্রথম বিশ্বকাপ জয় হয়ে ওঠে ক্রিকেটের চেয়েও বড় কিছু।

ব্যাক টু ব্যাক ফাইনালে খেলেও আইসিসির বিশ্বসেরার ট্রফিটা ছুঁয়ে দেখতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। মেলবোর্নের পর লর্ডসেও ট্রফি জয়ের সেলিব্রেশন দেখেছে ব্যাক্ল-ক্যাপস।কিউইদের এমন উদযাপনের অপেক্ষাটা কত দীর্ঘ হয় কে জানে!

LEAVE A REPLY