ছুটিতে এসে আটকে পড়েছে লিবিয়া প্রবাসীরা, ফিরতে সহায়তা দেবে দূতাবাস

0
127

ছুটিতে দেশে বেড়াতে আসার পর করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতিতে আটকে পড়া লিবিয়া প্রবাসীদের দেশটিতে ফেরাতে উদ্যোগ নিয়েছে দেশটিতে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস। দূতাবাসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দূতাবাস বলছে, লিবিয়ায় বৈধভাবে কর্মরত প্রবাসীদের মধ্য থেকে অনেকে করোনাভাইরাস মহামারির আগে ছুটিতে দেশে গিয়ে আটকে পড়েন। করোনার ঝুঁকি এড়াতে লিবিয়া সরকার গত মার্চ মাস থেকে বিমানবন্দর ও স্থলবন্দর বন্ধসহ বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপ করে। পরে লকডাউন ও কারফিউ জারির মাধ্যমে লিবিয়ার সরকার করোনার বিস্তার রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়। দীর্ঘদিন ধরে বিমান চলাচল বন্ধ থাকার পর সাম্প্রতিক সময়ে লিবিয়া সরকার সীমিত পরিসরে বিমানবন্দর চালু করেছে। কিন্তু ছুটিতে দেশে যাওয়া অনেক প্রবাসীর ভিসা/এন্ট্রি পারমিটের মেয়াদ এরই মধ্যে পেরিয়ে গেছে।

এ পরিস্থিতিতে দূতাবাসের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে গত ২২ নভেম্বর লিবিয়ার শ্রম মন্ত্রণালয়ের কর্মসংস্থান অধিদফতরের মহাপরিচালকের সঙ্গে দেশটিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বৈঠক করেছেন। বিস্তারিত আলোচনার পর কর্মসংস্থান অধিদফতরের মহাপরিচালক জানিয়েছেন, দেশে এসে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়ে তারা সহযোগিতা করবেন।

লিবিয়ার কর্মসংস্থান অধিদফতর বলছে, এ ক্ষেত্রে দেশে আটকে পড়া কর্মীদের নিয়োগকর্তারা সরাসরি অধিদফতরে আবেদন জানালে লিবিয়ার ইমিগ্রেশন অধিদফতরের মাধ্যমে তাদের ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর ব্যবস্থা করা হবে।

বাংলাদেশে আটকে পড়া প্রবাসীদের মধ্য থেকে যারা ফের লিবিয়ায় ফিরতে আগ্রহী, তাদের দ্রুত নিজ নিজ নিয়োগকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করছে লিবিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস।

এ বিষয়ে আরও তথ্য জানতে ফোন করতে হবে দূতাবাসের +২১৮৯১৬৯৯৪২০২ ও +২১৮৯১৬৯৯৪২০৭ মোবাইল নম্বরে। এছাড়া libyalw@yahoo.com ইমেইল ঠিকানার মাধ্যমেও যোগাযোগ করা যাবে।

LEAVE A REPLY