দুবাইয়ে জুমার নামাজের জন্য প্রস্তুত ৭৬৬ মসজিদ

0
506

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে জুমার নামাজের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৭৬৬ টি মসজিদ। এছাড়াও আরও অতিরিক্ত ৬০টি মসজিদ বরাদ্ধ রাখা হয়েছে জুমার নামাজের জন্য।

আগামীকাল শুক্রবার (০৪ ডিসেম্বর) থেকে এসব মসজিদে ৩০ শতাংশ ধারণক্ষমতায় জুমার নামাজ পুনরায় শুরু করবে।

খালিজ টামসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দুবাইয়ের ইসলামিক বিষয় ও দাতব্য কার্যক্রম বিভাগ (আইএসিএডি) সোমবার দুবাইয়ের সংকট ও দুর্যোগ পরিচালনার সুপ্রিম কমিটির নির্দেশনার সাথে মিল রেখে শুক্রবারের নামাজের জন্য ৭৬৬ টি মসজিদ পুনরায় চালু করার ঘোষণা দিয়েছে। এই সিদ্ধান্ত এসেছিল মুসল্লিদের অনুসরণ করার জন্য একটি পদ্ধতি স্থাপনের পরে।

দুবাইয়ের ৭৬৬ টি মসজিদের জন্য জুমার নামাজ ও খুতবা স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে যা এখন কঠোর কোভিড সুরক্ষার সতর্কতা অনুসরণ করবে যেমন দেখা গেছে যে মুসল্লিরা সামাজিক দূরত্ব এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেন এবং মাস্ক ব্যবহার করবে।

আইএসিএডি-র মহাপরিচালক ড: হামাদ আল শেখ আহমদ আল শায়বানী বলেছেন, আরও বেশি মুসল্লিদের স্থান দেওয়ার জন্য আমরা অন্যান্য ৬০টি মসজিদে জুমার নামাজ পড়ার অনুমতিও দিয়েছি।

তিনি বলেছেন, শুক্রবারের খুতবা এবং মুনাজাত মিলিতভাবে ১০ মিনিটের বেশি হওয়া উচিত নয়, যেমনটি গত সপ্তাহে সংযুক্ত আরব আমিরাত কর্তৃপক্ষের নির্দেশ দিয়েছিল।

ড: হামাদ আরো বলেন, মসজিদের কর্মী ও স্বেচ্ছাসেবকরা বিভিন্ন মসজিদে মুসল্লিদের প্রবেশ ও বের হওয়ার ব্যবস্থা দেখাশুনা করতে থাকবে। সবাইকে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে এবং তাদের নিজস্ব জায়নামায সাথে আনতে হবে।

যদি মসজিদের ভেতরের স্থান পূর্ণ হয়ে যায়, স্বেচ্ছাসেবীরা মসজিদের বাইরের উঠান ব্যবহার করতে মুসল্লিদের নির্দেশ দেবেন। মুসল্লিদের অবশ্যই দুই মিটার নিরাপদ দূরত্ব নিশ্চিত করা হবে।

আইএসিএডি মিলাদের জন্য সুরক্ষা নির্দেশা অনুসরণ করার প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দিয়েছিল, যার মধ্যে রয়েছে মসজিদে খাবার ও পানির বন্টন করা যাবে না।

মুসল্লিদের জন্য গাইডলাই :

গত ২৪ নভেম্বর, জাতীয় জরুরী সঙ্কট ও দুর্যোগ পরিচালনা কর্তৃপক্ষের (এনসিইএমএ) মুখপাত্র ড: সাইফ আল ধেহরি ঘোষণা করেছিলেন যে সংযুক্ত আরব আমিরাতের জুড়ে মসজিদগুলি শুক্রবারের নামাজের ৩০ মিনিট আগে মুসল্লিদের জন্য আবার খোলা হবে এবং ৩০ মিনিট পরে এটি বন্ধ হবে। করোনাভাইরাস মহামারী সম্পর্কিত সর্বশেষ অগ্রগতির রূপরেখা সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার আয়োজিত একটি প্রেস ব্রিফিংয়ের সময় এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল।

মসজিদগুলিতে টয়লেট, ওযুর স্থান এবং মহিলাদের নামাজের জায়গা বন্ধ থাকবে।

কর্তৃপক্ষ বৃদ্ধ, শিশু, কঠিন রোগে আক্রান্তদের পাশাপাশি দুর্বল প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্ন লোকদেরও বাসা থেকে ইবাদত করার আহ্বান জানিয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত শিল্পাঞ্চলে অবস্থিত মসজিদগুলি বন্ধ থাকবে।

LEAVE A REPLY