বাংলাদেশ ও আমিরাত পারস্পরিক সম্পর্ক বৃদ্ধি ও উন্নয়নে সাথে কাজ করবে।

0
121

গতকাল বুধবার দুবাইয়ে বাংলাদেশের স্বারষ্ট্রমন্ত্রী আসদুজ্জামান খানকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের উপ প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লেফটেন্যান্ট জেনারেল শেখ জায়েদ আর নাহিয়ান। সংযুক্ত আরব আমিরাতের পারস্পরিক সম্পর্ক বৃদ্ধি ও উন্নয়নে দুই দেশ একত্রে কাজ করার আশ্বাসদেন।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু গণমাধ্যমকে জানান সংযুক্ত আরব আমিরাতের উপ প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লেফটেন্যান্ট জেনারেল শেখ জায়েদ আল নাহিয়ানের সঙ্গে গতকাল বুধবার দুবাইয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।
বুধবার দুবাইয়ের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় ঘন্টাব্যাপী দুবাই এক্সপো ২০২০-এর একটি ভেন্যুতে দুই দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক বৃদ্ধির জন্য বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনাকালে দুই নেতা বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময় হতে বাংলাদেশ ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সম্পর্ক নিয়ে আলোকপাত করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের দ্রুত অগ্রগতির প্রশংসা করেন শেখ জায়েদ আল নাহিয়ান।

তিনি আমাদের দক্ষ জনশক্তিরও ভূয়সী প্রশংসা করেন। বাংলাদেশে ব্যবসা ও বিনিয়োগ বাড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। বাংলাদেশ ও সংযুক্ত আরব আমিতের পারস্পরিক সম্পর্ক বৃদ্ধি ও উন্নয়নে দুই দেশ একত্রে কাজ করবে বলে জানান।

বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁকে বাংলদেশ ভ্রমণের আমন্ত্রণ জানালে শেখ নাহিয়ান সে আমন্ত্রণ গ্রহণ করেন এবং দুই দেশের সুবিধাজনক সময়ে তিনি বাংলাদেশ ভ্রমণ করবেন বলে জানান। বৈঠক শেষে দুই নেতা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দসহ দুবাই এক্সপোতে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন পরিদর্শন করেন।

গতকাল সন্ধ্যায় দুবাইয়ের একটি হোটেলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ট্রেড এবং ইকোনমিক মিনিস্টার এবং ইন্টারপোলের প্রেসিডেন্ট মেজর জেনারের ড. আহমেদ নাছের আল রাইছির সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সৌজন্য সাক্ষাৎ হয়।

বৈঠকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ট্রেড ও ইকোনমিক মিনিস্টার ব্যবসা বাণিজ্য সহ বাংলাদেশের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রমে তাদের অংশগ্রহণের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

অপর বৈঠকে ইন্টারপোলের সভাপতি বাংলাদেশে জঙ্গিবাদসহ সন্ত্রাসী কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণে থাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। এবং বাংলাদেশের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে প্রশিক্ষণ প্রদান ও গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়সহ সব ধরনের সন্ত্রাস নির্মূল কার্যক্রমে বাংলাদেশের পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

বৈঠকে বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন এবং পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আইয়ূব চৌধুরী,সুরক্ষা সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুলী ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের বাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আবু জাফর সহ আরো অনেকে উপস্থিতি ছিলেন।  

LEAVE A REPLY