বাংলাদেশসহ ১৩ দেশের নাগরিকদের জন্য ইতালির উড়োজাহাজও বন্ধ

0
251

আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশসহ ১৩টি দেশের নাগরিককে ইতালিতে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না বলে নতুন অধ্যাদেশে জানানো হয়েছে। বন্ধ থাকবে উড়োজাহাজ চলাচলও। ইউরোপের বাইরে থেকে যারা আসবে, ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন না মানলে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

এদিকে, করোনায় আক্রান্ত আরও ১৮৪ বাংলাদেশিকে নতুন করে আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) ইতালির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জারিকৃত নতুন এক অধ্যাদেশে জানানো হয়, ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশসহ ১৩টি দেশের নাগরিককে ইতালিতে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। অবৈধ উপায়ে কেউ দেশটিতে প্রবেশের চেষ্টা করে থাকলেও, তাদেরকে বাধ্যতামূলকভাবে ফিরিয়ে দেয়া হবে।

অধ্যাদেশে আরও বলা হয়, এসময় বাংলাদেশসহ ওই দেশগুলো থেকে ইতালিগামী যাত্রীবাহী বিমান চলাচলও নিষিদ্ধ থাকবে। এছাড়াও, ইতালির জরুরি অবস্থার মেয়াদ আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয় ওই অধ্যাদেশে।

ইতালি সরকারের এমন সিদ্ধান্তে হতাশা ব্যক্ত করেছেন দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এতে করে বাংলাদেশিরা নতুন করে ক্ষতির সম্মুখীন হবেন বলেও জানান তারা।

এর আগে, ইতালি সরকার প্রথম দফায় ৯ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে সব এয়ারলাইন্সের বিমান চলাচল নিষিদ্ধ করে। পরে তা ১৪ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়। এবার তা আরেক দফা বাড়িয়ে ৩১ জুলাই পর্যন্ত নির্ধারণ করা হলো।

গেল ফেব্রুয়ারি থেকে ইতালিতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হয়। ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত দেশটিতে মারা গেছেন প্রায় ৩৫ হাজার মানুষ। মৃত্যু হয়েছে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশিরও। এদিকে, করোনায় আক্রান্ত আরও ১৮৪ বাংলাদেশিকে নতুন করে আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY