আফগানিস্তানকে শত কোটি ইউরো দেবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

0
44

আফগানিস্তানের জন্য ১০০ কোটি ইউরো (১১৫ কোটি ডলার) ত্রাণ সহায়তা প্যাকেজ অনুমোদন করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। তবে এর সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে নানাবিধ শর্ত। সহায়তার পুরোটাই যাবে মানবিক খাতে, উন্নয়মূলক কাজের জন্য কোনো অর্থ ছাড়া হবে না। স্বীকৃত সরকার না হওয়ায় তালেবান প্রশাসনের হাতে যাবে না এক পয়সাও। এছাড়া, বরাদ্দের প্রায় অর্ধেকটাই যাবে তালেবানের ভয়ে পালানো আফগানদের আশ্রয় দেওয়া বিভিন্ন দেশের কাছে। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে ইইউ প্রধান উরসুলা ভন ডার লিয়েন বলেছেন, আফগানিস্তানে সম্ভাব্য মানবিক ও আর্থ-সামাজিক অধঃপতন এড়াতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। আফগান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য জি২০ দেশগুলোর এক ভার্চুয়াল সম্মেলনে এ সহায়তার ঘোষণা দেন ইইউ প্রধান।ইউরোপীয় ইউনিয়ন এর আগে আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তা হিসেবে ৩০ কোটি ইউরো দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল।এর সঙ্গে নতুন করে ২৫ কোটি ইউরো যোগ হবে।বরাদ্দ ১০০ কোটির বাকি অর্থ দেওয়া হবে পালিয়ে যাওয়া আফগানদের আশ্রয় দেওয়া দেশগুলোকে।বিবৃতিতে ইউরোপীয় জোটের প্রধান জানান, তাদের দেওয়া সহায়তা আফগানিস্তানে মাঠপর্যায়ে কর্মরত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার মাধ্যমে সরবরাহ করা হবে। ব্রাসেলসের স্বীকৃতি না থাকায় তালেবান সরকারের কাছে কোনো অর্থ দেওয়া হবে না। এছাড়া, আফগানিস্তানের জন্য ইউরোপীয় উন্নয়ন সহযোগিতা আপাতত স্থগিতই থাকছে।তিনি বলেন, আফগানিস্তানে বড় মানবিক ও আর্থ-সামাজিক অধঃপতন এড়াতে যা যা প্রয়োজন, আমাদের তা করতে হবে এবং এটি দ্রুত করা দরকার।ইইউ প্রধান বলেন, আফগান কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যেকোনো ধরনের সম্পৃক্ততার প্রশ্নে মানবাধিকার রক্ষাসহ আমাদের শর্তগুলোর বিষয়ে আমরা এখনো অনড়। এখন পর্যন্ত প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলোই তাদের হয়ে কথা বলছে। কিন্তু তালেবানের কর্মকান্ডের জন্য আফগান জনগণকে মূল্য দিতে হবে না।

LEAVE A REPLY